Car cleaning-এর ম্যাজিক উপকরণ ক্লে-বার ব্যবহার করছেন তো?!

Car Cleaning-এর ম্যাজিক উপকরণ ক্লে-বার কী?

Car cleaning এর জন্য একটি অসাধারণ উপকরণ! অটো ডিটেইলাররা গাড়ির গ্লাস, পেইন্ট, ফাইবার গ্লাস এবং মেটালকে দূষণমুক্ত করার জন্য ক্লে-বার ব্যবহার করেন। ডিটেইলিং ক্লে-বারগুলো প্রাকৃতিক বা সিনথেটিক হতে পারে। তবে সিনথেটিক ক্লে-বারই সবচে’ বেশি ব্যবহৃত হয়।

 

নাম যেহেতু ক্লে-বার, এর প্রকৃতিও তেমনই। কাদামাটির মতো। স্থিতিস্থাপক। যে কোন ভাবে বাঁকিয়ে, দুমড়ে-মুচড়ে এটা দিয়ে গাড়ি পরিষ্কার করা যায়। এইজন্য গাড়ির সূক্ষ অংশগুলো পরিষ্কারেও ক্লে-বার খুব কাজের জিনিস।

 

 

ক্লে-বার কীভাবে কাজ করে?  

ক্লে-বার তৈরি করা হয়েছেই গাড়ির দূষণ রোধ করার জন্য, যা আমরা শুরুতেই বলেছি। এটা একটা ডিজাইন্ড resin mixture. ক্লে-বার দিয়ে গাড়ির কোন জায়গা ঘষবেন- ব্যস! সমস্ত ধুলোবালি, সব ধরণের ময়লা সে নিজের সঙ্গে আটকে ফেলবে। একটা কথা সব সময় মনে রাখতে হবে, ক্লেয়িং করার আগে ডিটেইলার স্প্রে ব্যবহার করতে হবে। এতে করে কঠিন ধরণের ময়লাগুলো নরম হয়ে যাবে। ফলে গাড়িকে খুব বেশি ঘষতে হবে না।

 

কীভাবে বুঝব কোনটি ভালো ক্লে-বার?

দুই ধরণের ক্লে-বার আছে- মিডিয়াম গ্রেড এবং ফাইন গ্রেড। মিডিয়াম গ্রেডের ক্লে-বারগুলো হলো মূলত কনজ্যুমার গ্রেড। এগুলোর এ্যাগ্রেসিভনেস কম। মিডিয়াম ক্লে-বার ব্যবহার করলে ক্লিনিং-এ একটু বেশি পরিশ্রম করতে হবে আপনাকে। আর ফাইন গ্রেডের ক্লে-বারগুলো হলো প্রফেশনাল গ্রেড। প্রফেশনাল গ্রেড এর ক্লে-বার কার সার্ভিসিং সেন্টারগুলোতে ব্যবহৃত হয় Car cleaning-এর সময়। ক্লেয়িং-এর সময় আলতো মুছেই পরিষ্কার করা যায় এগুলো দিয়ে। কাজেই, Car cleaning-এ পারদর্শী কেউ পরামর্শ চাইলে আমরা প্রফেশনাল গ্রেড এর ক্লে-বার এর কথাই বলব। পারদর্শী না হলে মিডিয়াম গ্রেড ব্যবহার করাই ভালো। কারণ- অধিক এগ্রেসিভনেসের কারণে প্রফেশনাল গ্রেড এর ক্লে-বার গাড়ির পেইন্ট ড্যামেজ করতে পারে।

 

কতদিন পর পর ক্লেয়িং করতে হবে?

ক্লেয়িং করার জন্য সুনির্দিষ্ট টাইম স্প্যান নেই, তবে এক্সপার্টরা বছরে অন্তত দু’বার car cleaning-এর জন্য ক্লেয়িং করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। আপনি যদি ক্লিনিং খুব ভালো বোঝেন, তাহলে দুইয়ের অধিক বারও ক্লেয়িং করতে পারেন। গাড়ির গায়ে হাত বুলিয়ে খুব অমসৃণ ঠেকলে বুঝতে হবে ক্লিনিং-এর প্রয়োজন আছে।

 

ক্লে-বার কিভাবে সংরক্ষণ করব?

ক্লে-বার রাখতে হবে এর জন্য নির্ধারিত কেইসেই। অথবা কোনো প্লাস্টিকের ব্যাগে সিল করে রাখতে হবে। কোনভাবেই রেফ্রিজারেটরে রাখা যাবে না। ২০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রার নিচে রাখলে ক্লে-বার ভালো থাকবে।

 

Car cleaning-এ ব্যবহার করুন ক্লে-বার, আর অনেক বেশি ভালো রাখুন শখের গাড়িটি। হ্যাপি ক্লিনিং!

 

তথ্য- Autogeek, Washos 

 

 

এই লেখা নিয়ে আপনার অনুভূতি কী?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

মন্তব্যসমূহ

footer-svg