প্রহরী – Vehicle Tracking System (VTS) of Bangladesh

পড়তে লাগবে: 3 মিনিট

টেসলা ইলেক্ট্রিক কারকে ভক্সওয়াগনের চ্যালেঞ্জ!

বর্তমানে ইলেক্ট্রিক কার বা বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে সবচাইতে এগিয়ে আছে টেসলা। পার্সোনাল গাড়ি থেকে শুরু করে মালবাহী ট্রাক সব ক্ষেত্রেই এই বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণ কোম্পানি, তার সাফল্য এবং সুনাম ধরে রেখেছে। বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে টেসলার সমকক্ষ এবং প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে গাড়ির বাজারে এখনো কেউ এর ধারে কাছেও আসতে পারেনি। কিন্তু বৈদ্যুতিক গাড়ির বাজারে টেসলার একচেটিয়া আধিপত্য ভাংতে চাইছে বিখ্যাত গাড়ি উৎপাদনকারী কোম্পানি ভক্সওয়াগন।

টেসলা মডেল থ্রির গাড়ি

কবে আসবে ভক্সওয়াগন ইলেক্ট্রিক কার!

এই বছর অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে ভক্সওয়াগনের প্রধান কার্যনির্বাহী হার্বার্ট ডাইএস বলেন, আগামী ২০২০ সালের মধ্যে ভক্সওয়াগন এমন কিছু বৈদ্যুতিক গাড়ি তৈরি করবে যা কার্যকারিতার দিক থেকে টেসলার সমকক্ষ হবে কিন্তু দামের দিক দিয়ে টেসলার চাইতেও অর্ধেক হবে।

জার্মান টিভি চ্যানেল জেডডিএফ এর একটি অনুষ্ঠান, মেব্রিট ইলনারে এমন মন্তব্য করেন ভক্সওয়াগনের প্রধান কার্যনির্বাহী পরিচালক। তিনি বলেন,

বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে আমাদের অবস্থান এখন অকনেকটাই শক্তিশালী। ইলেক্ট্রোমোবিলিটিতে ভক্সওয়াগন এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেছে। জার্মানিতে আমরা একটি প্লান্ট স্থাপন করেছি এবং চীনের সাংহাইতে বৈদ্যুতিক গাড়ির যন্ত্রাংশ তৈরির একটি কারখানাও স্থাপন করা হয়েছে। আশা করছি ২০২০ সালের মধ্যেই আমরা বৈদ্যুতিক গাড়ি নিয়ে বাজারে চলে আসতে পারব যা টেসলার মতো সবকিছুই করতে পারবে কিন্তু অর্ধেক খরচে।

জনসম্মুখেই টেসলা এবং ভক্সওয়াগন প্রতিদ্বন্দ্বীতা

একটি কোম্পানি আরেকটি কোম্পানির নাম ধরে এভাবে প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হবার ঘটনা গাড়ি প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলোর মধ্যে খুবই বিরল। কিন্তু ভক্সওয়াগন গত বছর থেকেই ঘোষণা দিয়ে আসছে যে তাদের যোগ্য প্রতিযোগী হচ্ছে টেসলা।

বিখ্যাত অনলাইন ম্যাগাজিন বিজনেস ইনসাইডার এই ব্যাপারে টেসলা এবং ভক্সওয়াগনের সাথে যোগাযোগ করলে, এই ব্যাপারে কোন পক্ষই কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বলে জানিয়েছে ম্যাগাজিনটি।

ভক্সওয়াগনের আসন্ন ইলেক্ট্রিক গাড়ির ডিজাইন

ইলেক্ট্রিক গাড়ি উৎপাদনে ভক্সওয়াগনের বিনিয়োগ

এর আগে রয়টর্সের বরাত দিয়ে ভক্সওয়াগন গত বছর জানিয়েছিল, ২০২০ সালের মধ্যে এই গাড়ি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানটি, বৈদ্যুতিক গাড়ি, স্বচালিত গাড়ি তৈরি এবং যানবাহন পরিসেবা ক্ষেত্রে প্রায় ৪০ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করবে। এবং ২০২৫ সালের মধ্যে প্রতি বছর ৫০ টি মডেলের প্রায় তিন লক্ষ্ বৈদ্যুতিক গাড়ি বিক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। ভক্সওয়াগনের আসন্ন কিছু বৈদ্যুতিক গাড়ির মধ্যে রয়েছে বাজ মিনিবাস, ক্রুজ ক্রসওভার এবং কম্প্যাক্ট কার।

বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনে এখন পর্যন্ত শীর্ষ স্থান ধরে রেখেছে টেসলা। টেসলার ইলেক্ট্রিক গাড়ির মান এবং সৌন্দর্যের জন্য এর গাড়িগুলো বেশ সমালোচিত এবং সমাদৃতও হয়েছে। টেসলার সর্বাধুনিক গাড়ি মডেল থ্রি বর্তমান গাড়ির বাজারে বেশ সুনামও কুড়িয়েছে ইতোমধ্যে।

ভক্সওয়াগন এবং টেসলার তুলনামূলক চিত্র

ভক্সওয়াগন ইলেক্ট্রিক কারের দাম? 

যদিও ভক্সওয়াগন এখনো তাদের আসন্ন বৈদ্যুতিক গাড়ির দাম সম্পর্কে কোন ধারণা দেয়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে তাদের তৈরি গাড়ির দাম হতে পারে ২৫ হাজার থেকে ২৮ হাজার ইউরো। যা টেসলা থেকে কম কিন্তু অর্ধেক নয়।

ভক্সওয়াগন ২০২০ সালে তাদের উৎপাদিত প্রথম বৈদ্যুতিক গাড়ি ইউরোপ এবং চীনের বাজারে ছাড়বে এবং পরবর্তীতে নর্থ আমেরিকাতে বাজারজাত করবে বলে জানা গেছে।


গাড়ি যেখানেই থাকুক, গাড়ির খবর সবসময় থাকবে আপনার হাতের মুঠোয়। প্রহরী ভেইকেল ট্র্যাকিং সার্ভিসের মাধ্যমে আপনার গাড়ির উপর নজরদারি করুন দিন রাত ২৪ ঘণ্টা। যদি গাড়িতে থাকে প্রহরী, গাড়ি নিয়ে টেনশন আর নয়!

    গাড়ির সুরক্ষায় প্রহরী সম্পর্কে জানতে

    Share your vote!


    এই লেখা নিয়ে আপনার অনুভূতি কী?
    • Fascinated
    • Happy
    • Sad
    • Angry
    • Bored
    • Afraid

    মন্তব্যসমূহ

    Scroll to Top