সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনলে প্রথমেই যা যা করনীয়

গাড়ি কেনার সময় অনেকেই নতুন গাড়ি না কিনে পুরানো বা সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। অনেক ভালো ব্র্যান্ডের আর দামী গাড়ি কম দামে কেনার একটি সহজ উপায় হচ্ছে সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনা । অনেকে আবার পুরানো গাড়ি কিনে চিন্তায় পড়ে যান যে, গাড়িটি কিভাবে মেইনটেইন করবেন। আবার অনেকে হয়তো অনেক কিছুই জানেন কিন্ত কোনটার পর কোনটা করবেন বুঝে উঠতে পারেন না। আসুন জেনে নেই সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার পর ধাপে ধাপে করনীয় কাজ সমূহ  –

নাম পাল্টানো এবং রেজিস্ট্রেশন করে নিন

রাস্তায় কোন গাড়ি আইনগত ভাবে চালাতে হলে অবশ্যই গাড়িটি আপনার নামে রেজিষ্ট্রেশন করা থাকতে হবে। যদি কোন ডিলারের মাধ্যমে আপনি গাড়ি কিনে নেন তাহলে হয়তো আপনার ঝামেলা অর্ধেকই কমে যাবে। অনেক সময় ডিলার নিজ দায়িত্বে রেজিস্ট্রেশনের কাগজপত্র ঠিক করে দেয়, আবার কিছু টাকা-পয়সাও দিয়ে দেয়। কাজেই, সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার পর প্রথমেই যে কাজটি করবেন সেটা হল নাম পাল্টে, রেজিস্ট্রেশনের কাগজপত্র ঠিক করে ফেলবেন।

গাড়ি রেজিস্ট্রেশনের সময় আপনার কিছু কাজ করে নিতে হবে-

  • টাইটৈল আপনার নামে করে নিতে হবে।
  • সম্পূর্ণ এমিশন সিস্টেম চেক করে নেবেন।
  • গাড়ির নিরাপত্তার সম্পূর্ণ কাগজপত্র চেক করে নেবেন যেমন- ইন্স্যুরেন্সের কাগজ।
  • যার থেকে গাড়ি কিনবেন তার সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নিয়ে নেবেন। তার ঠিকানা নিয়ে নেবেন যাতে পরবর্তী সময়ে কোন সমস্যায় তাকে খুঁজে পাওয়া যায়।

ছোটখাটো সমস্যা ঠিক করে নিন

সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কিনেই ছোটখাটো কিছু সমস্যা ঠিক করে নেবেন। যেমন – লাইটগুলো ঠিক করে নেবেন, ট্রিমগুলো পলিশ করে নেবেন, স্পার্ক প্লাগগুলো পাল্টে নেবেন আর বাদবাকি এরকম ছোটখাটো সমস্যা সেরে নেবেন। মনে রাখবেন, সমস্যা ছোট থাকতে সেরে নিলে পরে বড় সমস্যায় পড়বেন না। ছোট সমস্যায় কম খরচ আর বড় সমস্যায় বেশি খরচ।

সমস্যা থাকলে ঠিক করুন

অভিজ্ঞ মেকানিক ডেকে নিন

আপনি হয়তোবা গাড়ি কেনার আগে গাড়ি ভালোভাবে পরীক্ষা করে নিয়েছেন কিন্তু গাড়ি কেনার পরেও কিছু জিনিস অভিজ্ঞ লোক/ মেকানিকের মাধ্যমে পরীক্ষা করার প্রয়োজন পড়ে। একজন অভিজ্ঞ মেকানিক ডেকে নিন । আর গাড়ির ব্রেক, ফ্লুয়িড, ফিল্টার, চাকা সবকিছু একসাথে পরীক্ষা করে নিন। মেকানিক আপনাকে বলে দেবে যদি কিছু পাল্টাতে হয় বা বড় কোন সমস্যা গাড়ির রয়েছে কি না।

ফিল্টার পাল্টে নিন

সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনার পর যদি দেখেন ফিল্টার গুলো দেখতে নতুন লাগছে তবুও পাল্টে নিন। ট্রান্সমিশন ফিল্টার, ফুয়েল ফিল্টার, এবং এয়ার ফিল্টার সবই পাল্টে নতুন করে বসিয়ে নেবেন।

ফ্লুয়িড সিস্টেম ঠিক করুন 

গাড়ির ফ্লুয়িড সিস্টেম ঠিক করায় বেশি জোড় দেবেন কারন ব্রেক ফ্লুয়িড আর কুল্যান্টে ঝামেলার কারণে গাড়ির ব্রেক ফেইল হতে পারে। গাড়ির সব ফ্লুয়িড ঠিক রাখার জন্য হয় ফ্লাশিং না হয় ব্লিডিং করে নেবেন। আর কোন লিকেজ আছে কিনা চেক করে নেবেন।

গাড়িতে কয়েক ধরণের ফ্লুইড থাকে।

ব্রেক চেক 

আপনি যদি পরীক্ষা করার জন্য আর কোনো পার্টস খুঁজে না পান তাহলে অবশ্যই ব্রেক পরীক্ষা করে নিন। ব্রেক পরীক্ষা করা একটি জরুরী বিষয়। মনে রাখবেন, আপনি যখন গাড়ির স্টিয়ারিং ধরেন তখন আপনার হাতে আপনার জীবনের সাথে সাথে অনেকগুলো মানুষের জীবনের দায়িত্ব থাকে।

টায়ার পরীক্ষা 

টায়ারে অতিরিক্ত হাওয়া অথবা কম হাওয়া থাকা দুটাই ক্ষতিকর। অনেকে শীতের সময় টায়ারে বেশি হাওয়া আবার গরমের সময় কম হাওয়া দিয়ে রাখেন। এমনটা কখনোই করবেন না। গাড়ি সেকেন্ড হ্যান্ড হোক বা নতুন টায়ারের প্রেশার সবসময় এক রকম রাখতে চেষ্টা করুন।

টায়ার পুরোনো হলে বদলে নিন।

ম্যানুয়াল ভালোভাবে পড়ুন

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় মানুষ যেকোন কিছু কেনার পর ম্যানুয়াল বুক ঠিকভাবে পড়েন না। আর গাড়ির ম্যানুয়াল বই তো কখোনই কেউ ছুঁয়েও দেখেন না । কিন্তু গাড়ির চাকার আদর্শ প্রেশার, ফুয়েল ক্যাপাসিটি এবং বিভিন্ন পার্টসের ফাংশন জানতে অবশ্যই ম্যানুয়াল বুক ভালোভাবে পড়ে নেবেন। তাহলে গাড়ি পরে মেইনটেইন করতে সুবিধা হবে।

গাড়ি পরিষ্কার করিয়ে নিন

মানুষ যখন সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি কেনে তখন অন্য সবকিছু ঠিক করে নিলেও গাড়ি পরিস্কারের ব্যাপারটা বেমালুম ভুলে যান। কিংবা ভাবেন সাধারণ সাবান-পানি দিয়ে আমিই ধুয়ে মুছে নিতে পারি। এরকম চিন্তা কখনোই করা উচিৎ না। আপনি চিন্তা করে দেখুন, আরেকজনের ব্যবহৃত গাড়িতে কত অজানা ময়লা, জীবাণু রয়ে গেছে হয়তো, সেগুলো যদি আপনার শরীরে চলে আসে তাহলে। গাড়ির স্টিয়ারিং, সীট, ম্যাট, ইন্টিরিওর, এক্সটেরিওর সবকিছু খুব ভালোভাবে পরিষ্কার করে নেবেন। যেকোন ধরনের ভাইরাস বা জার্ম থেকে বাঁচতে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই।

কেনার পর গাড়ি পরিষ্কার করা জরুরী

গাড়ির যাবতীয় সব ধরনের সমস্যার সমাধান আর মজার মজার সব টিপস এন্ড ট্রিকস জানতে পড়ুন প্রহরী ব্লগের বাংলা সেকশন। গাড়ির সুরক্ষায় গাড়িতে ইনস্টল করুন প্রহরী ভেহিক্যাল ট্র্যাকিং ডিভাইস।

সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি প্রহরী ভেহিক্যাল ট্র্যাকিং সার্ভিস, ২০টির বেশি কার্যকরী ফিচার নিয়ে আপনাকে দিচ্ছে ২৪/৭ দিন অবিরত সেবা।

গাড়ির সুরক্ষায় প্রহরী সম্পর্কে জানতে

এই লেখা নিয়ে আপনার অনুভূতি কী?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

মন্তব্যসমূহ


footer-svg