গাড়ির ব্যাটারি মেনটেনেন্স এর কয়েকটি কার্যকরী টিপস

ছোটবেলায় ব্যাটারি নিয়ে সবারই কমবেশি কৌতূহল থাকে। বিশেষ করে ব্যাটারির ভেতর কি থাকে সেটা দেখার। ব্যাটারির বিষয়ে পদার্থ বিজ্ঞানের জটিল প্লাস মাইনাসের সূত্র অনেকের মাথার উপর দিয়ে যায় তাই কৌতূহলে  অনেকে ব্যাটারি ভেঙ্গে ফেলেন দেখার জন্য আসলে ব্যাটারি আসলে কি দিয়ে বানানো হয়। নিত্য ব্যাবহারের ব্যাটারি আর গাড়ির ব্যাটারির মধ্যে পার্থক্য থাকে। ব্যাটারি বিভিন্ন রকমের হয়ে থাকে। বিভিন্ন ব্যাটারি বিভিন্ন কাজে ব্যাবহার করা হয়ে থাকে । গাড়ির ব্যাটারিগুলো হয় সবথেকে বেশী সংবেদনশীল। আর দামীও বটে। গাড়ির ব্যাটারি তো আপনি রোজ রোজ পালটাবেন না। অন্তত এক,দের বছর ব্যবহার করবেন। কাজেই ব্যাটারি খুব যত্নের সাথে ব্যাবহার করবেন । খুব যত্নের সাথে ব্যাবহার করলে একটা ব্যাটারি অনেকটা দিন ব্যবহার করা সম্ভব। আজ আমরা  গাড়ির ব্যাটারি মেনটেনেন্স সম্পর্কে কয়টি কার্যকরী টিপস সম্পর্কে জানব –

গ্যারেজে গাড়ি পার্ক

গাড়ি সবসময় গ্যারেজে পার্ক করতে হবে। গ্যারেজ এমন জায়গায় করতে হবে যেখানে পর্যাপ্ত আলো বাতাস থাকে। বেশী গরম জায়গায় গাড়ি পার্ক করলে ব্যাটারি দ্রুত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। গ্যারেজে ভেন্টিলেশন এর জন্য জানালা রাখতে হবে। গ্যারেজে ডিহিউমিডিফাইয়ার  বসিয়ে নিতে পারেন। এতে করে অতিরিক্ত হিউমিডিটি বের হয়ে যাবে। সবথেকে ভাল সমাধান ছোট্ট একটি এয়ার কন্ডিশনার বসিয়ে নিলে। গ্যারেজ বানানোর সময় এমন দরজা সংযুক্ত করে নেবেন যেগুলো পরিবেশবান্ধব। গ্যারেজের ভেতর ও বাহিরে হালকা রং করে নেবেন। এছাড়া বাজারে কিছু পর্দা পাওয়া যায় যেগুলো আলো বাতাস চলাচলে সাহায্য করে। সবসময় গাড়ি গ্যারেজে পার্ক করার আগে কিছুক্ষন বাইরে রেখে ঠাণ্ডা করে নিন।

গাড়ির সুবিধানুযায়ি তৈরি করুন গ্যারেজ

ব্যাটারি পরিষ্কার রাখতে হবে

ব্যাটারি ময়লা বা ব্যাটারির সংযোগ স্থান ময়লা থাকলে চার্জ দ্রুত শেষ হতে পারে। সেক্ষেত্রে ব্যাটারি ও এর আশেপাশের জায়গা ভালোভাবে পরিষ্কার করে রাখতে হবে। ব্যাটারি পরিষ্কারের কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি হচ্ছে । কিছু ঘরোয়া উপাদান যেমন- প্রোটেকটিভ গ্লভস , বেকিং সোডা, পানি, ছোট্ট টাওয়াল, পুরানো টুথব্রাশ, পেট্রোলিয়াম জেলি ইত্যাদি। প্রথমে ইঞ্জিন অফ করে নিন। ব্যাটারির সংযোগস্থল থেকে খুলে নিন ।  বেকিং সোডা আর পানি একসাথে মিশিয়ে  নিন। ব্যাটারি কেসে কোন লিকেজ থাকলে ব্যাটারি পাল্টে নতুন ব্যাটারি সংযুক্ত করে নিতে হবে। ব্যাটারির আশেপাশে বেকিং সোডার মিশ্রণটি ব্রাশ করে নিন। মিশ্রণটি শুকিয়ে গেলে টাওয়েল দিয়ে মুছে নিন । একদম শেষে পেট্রোলিয়াম জেলি ঘষে নিন।

ঘরোয়া পদ্ধতিতে ব্যাটারি পরিষ্কারের উপাদানসমূহ

গাড়ির ব্যাটারি আলাদা করে রাখুন

গাড়ির ব্যাটারি মেনটেনেন্স করার আরেকটি সহজ উপায় হচ্ছে গাড়ির ব্যাটারি আলাদা করে রাখুন। ব্যাটারি বক্স আলাদা করার জন্য আপনার প্রয়োজন একটি ফোম কুলার, ডাক্ট টেপ । প্রথমে ফোম বক্সটি কেটে নেবেন । বক্সের আশেপাশের কর্নারে ডাক্ট টেপ মুড়িয়ে নেবেন এতে ফোম বক্স খুব বেশী একটা নষ্ট হবেনা। তার কেটে টেপ মুড়িয়ে রাখুন ,সবথেকে সহজ উপায় ব্যাটারি ঠিক রাখার।

ব্যাটারি মেনটেনেন্স ও সোলার চার্জার

আপনি আপনার গাড়ির ব্যাটারি চার্জ দেয়ার জন্য কোন সোলার চার্জার কিনে নিতে পারেন। যদিও সোলার চার্জার অনেক দামী হয়। সোলার চার্জার আপনার ব্যাটারি সোলার এনার্জি দিয়ে চার্জ করে নেবে। একইসাথে আপনার যন্ত্রে নজরদারি করে আপনাকে জানাবে কখন চার্জ ফুল হয়ে গিয়েছে আর কখন আপনাকে চার্জার খুলে ফেলতে হবে। এভাবেই ব্যাটারি মেনটেনেন্স বজায় রাখতে পারেন আনায়াসে।

দামী সোলার চার্জার

ডিসটিল ওয়াটারের ব্যবহার

আপনি যদি আপনার গাড়ির ব্যাটারির আয়ুষ্কাল বৃদ্ধি করতে চান তাহলে অবশ্যই  এতে কিছু পানি যোগ করতে হবে। প্রথমে গাড়ির ইঞ্জিন বন্ধ করে নিন। গাড়ির হুড তুলে ব্যাটারির জায়গাটা দেখে নিন। ব্যাটারির ভেন্ট ক্যাপ খুলে নিন। ক্যাপ খোলার আগে উপরের ময়লা পরিষ্কার করে নিন তানাহলে উপরে জমে থাকা ময়লা ব্যাটারির ভেতরে পড়ার সম্ভাবনা থাকে। এরপর ব্যাটারির প্রত্যেকটা সেল চেক করে নিন । ব্যাটারিতে শুধু ডিসটিলড ওয়াটার ব্যবহার করূন। অন্য কোন তরল ব্যাবহারে ব্যাটারির স্থায়ী ক্ষতি হবার সম্ভাবনা থাকে। সেলের ক্ষুদ্র ছিদ্র দিয়ে পানি ঢেলে দিন। খেয়াল রাখবেন যাতে অতিরিক্ত পানি না হয়ে যায়। অতিরিক্ত পানি ঢেলে ফেললে আ্যসিডের সাথে মিশে লিকেজের সৃষ্টি করে। সেরকম কিছু হলে ফ্লাশ করে নিন। সবশেষে ভেন্ট ক্যাপ আবার আটকে নিন। গরমের সময় ব্যাটারিতে পানি বেশি ঢালুন। ব্যাটারির ভেন্ট ক্যাপ খুলে আশেপাশে কখনোই কোন জ্বলন্ত কিছু রাখবেন না। সবসময় লক্ষ্য রাখবেন কখনো যেন ব্যাটারির পানি কমে বা ফুরিয়ে না যায়।

পিউর ডিসটিলড ওয়াটার

ব্যাটারির নিরাপত্তা নিশ্চিত

গাড়ির ব্যাটারি অবশ্যই গাড়ির নিরাপদ জায়গায় রাখতে হবে। ব্যাটারি মেনটেনেন্স এই বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ। ব্যাটারিতে যদি কোন মৃদু কম্পন দেখতে পান তাহলে বুঝে নেবেন অবশ্যই ব্যাটারি সংযোজনের সমস্যা  রয়েছে। এ অবস্থায় ব্যাটারি থেকে তরল এসিড বের হয়ে দুর্ঘটনার সৃষ্টি করতে পারে। খেয়াল করবেন ব্যাটারির ট্রে সবসময় যেন পরিষ্কার থাকে। আর সংযোজনের সময় ব্যাটারি যেন ঠিক মত বসে।

 

ব্যাটারি অনেক সময় ডাউন হয়ে যেতে পারে আপনি নাও বুঝতে পারেন। তাই সবসময় ব্যাটারি চেক করে রাখবেন। গাড়ির এমন মজার সব তথ্য পেতে চোখ রাখুন প্রহরীর ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পেইজে। নিজে পড়ুন শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে। প্রহরী সম্পূর্ণ বাংলাদেশে তৈরি । ২০টির বেশী ফিচার নিয়ে আপনার গাড়িকে দেবে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা।

গাড়ির সুরক্ষায় প্রহরী সম্পর্কে জানতে

 

 

এই লেখা নিয়ে আপনার অনুভূতি কী?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

মন্তব্যসমূহ


footer-svg